বরগুনায় চীনফেরত শিক্ষার্থী হাসপাতালে, করোনাভাইরাস আতঙ্ক

বরগুনায় চীন থেকে আসা এক শিক্ষার্থী জ্বরে আক্রান্ত হয়ে পড়লে তাকে জেলার জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শনিবার তিনি দেশে ফেরত আসলে পরের দিন সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে স্বজনদের সহযোগিতার তাকে হাসপাতালে নেয়া হয়।

ওই শিক্ষার্থী জ্বরে আক্রান্ত বলে নিশ্চিত করেছেন বরগুনার সিভিল সার্জন ডা. হুমায়ুন শাহীন খান।

২২ বছর বয়সী ইমরান হোসাইন বরগুনা সদর উপজেলার ৯নং এম বালিয়াতলী ইউনিয়নের মোখলেছুর রহমানের ছেলে।

শিক্ষার্থী ইমরান বলেন, তিনি চীনের স্যানডং প্রদেশের রিজাউ পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের যন্ত্র প্রকৌশল বিভাগের শিক্ষার্থী। শনিবার সকালে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করেন।

এসময় বিমানবন্দরে তাকে বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হয়। এদিন তিনি ঢাকা থেকে যাত্রা করে রোববার সকালে তিনি বরগুনায় তার গ্রামের বাড়িতে পৌঁছান। সন্ধ্যায় পুলিশ তাকে বাড়ি থেকে এনে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে।

নিজেকে সম্পূর্ণ সুস্থ বলে দাবি করেন এই শিক্ষার্থী। এ বিষয়ে সিভিল সার্জন হুমায়ুন শাহীন খান যুগান্তরকে বলেন, চীনফেরত শিক্ষার্থী ইমরানের শরীরে হালকা জ্বর আছে। তাই তাকে হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে রেখে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হচ্ছে। বিষয়টি তিনি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেন।

এ বিষয়ে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবীর মোহাম্মদ হোসেন বলেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার দেয়া তথ্য ও তার নির্দেশে সদ্য চীনফেরত ওই শিক্ষার্থীকে বাড়ি থেকে এনে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মাসুমা আক্তার যুগান্তরকে বলেন, একজন ইউপি চেয়ারম্যানের দেয়া তথ্য অনুযায়ী সদ্য চীন ফেরত ইমরানের বিষয়ে আমি অবগত হই। এরপর ইমরানকে হাসপাতালে ভর্তি করার জন্য পুলিশকে বলি এবং সদর হাসপাতালে তাকে পরীক্ষা-নিরীক্ষা ও চিকিৎসা দেয়ার জন্য বলি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *